How to Prepare Your Skin Before Makeup | মেকআপের আগে আপনার স্কিনকে তৈরি করবেন কীভাবে

পারফেক্ট মেকআপ লুক পাওয়ার জন্যে স্টেপ বাই স্টেপ ফলো করছেন সব নিয়ম কানুন, তারপরও যেন কোথায় কোন একটা কমতি থেকেই যাচ্ছে? আমরা সকলেই চাই যে কোন প্রোগ্রামে বা কোথাও বের হওয়ার আগে নিজেকে সাজাতে। অনেকের জন্য, মেকআপ শুধুমাত্র দরকারই নয়, একটি শখও। কিন্তু আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যাদের এই মেকআপ নিয়ে কোনো অভিযোগের শেষ নেই! ভালো পণ্য ব্যবহার করলেও দেখতে মনের মতো হয় না কেন?! প্রশ্ন থেকে যায়। মেকআপের আগে ত্বককে সঠিকভাবে প্রস্তুত না করলে এই ধরনের সমস্যা হতে পারে! তাই মেকআপের আগে আপনার স্কিনকে তৈরি করবেন কীভাবে সেটা জেনে নেয়া যাক এখনই!

মেকআপের আগে আপনার স্কিনকে তৈরি করতে যা যা করনীয়

শুধু কি ভালো প্রোডাক্টস ব্যবহার করলেই হবে? তা কিন্তু না! ভালো প্রোডাক্টস ব্যবহার করার পাশাপাশি মেকআপ করার পূর্বে ত্বকেরও কিন্তু একটি প্রস্তুতির বিষয় থাকে যা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হলেও আমরা এড়িয়ে যাই। যেকোনো ত্বকে সুন্দর মেকআপ লুক তৈরি করতে হলে আগে ত্বককে তার জন্য প্রস্তুত করতে হবে। কীভাবে? জেনে নিন করনীয়গুলো!

মুখ ভালো করে পরিষ্কার করে নিতে হবে

অপরিষ্কার ত্বকে মেকআপ কখনই ভালভাবে বসবে না, তাই মেকআপ করার আগে আপনাকে অবশ্যই আপনার মুখ ভালভাবে পরিষ্কার করতে হবে। যাদের ত্বকে ব্ল্যাকহেডস বা হোয়াইটহেডসের সমস্যা রয়েছে, তারা অবশ্যই স্ক্রাব বা এক্সফোলিয়েট ব্যবহার করে সার্কুলার মোশনে আস্তে আস্তে ঘষে স্কিনের ডেডসেলসগুলো পরিষ্কার করার চেষ্টা করবেন। যাদের তৈলাক্ত ত্বক তাদের জন্য এই পদক্ষেপটি আবশ্যক। যাদের ত্বক স্বাভাবিক, তারা অবশ্যই ফেসওয়াশ ব্যবহার করে ত্বক পরিষ্কার করবেন। যাঁরা অভিযোগ করেন, মেকআপ আমাদের ত্বকে ঠিকমতো মানায় না, তাঁরা এই ধাপ অনুসরণ করলে সহজেই মুখে সমানভাবে মেকআপ ফিট হয়ে যাবে।

টোনার ব্যবহার করুন বা বরফ ম্যাসাজ দিয়ে নিন

এক্সফোলিয়েটর ব্যবহার করে স্কিন পরিষ্কার করার পর আমাদের মুখের পোরসগুলো প্রসারিত হয়ে পরে। আমাদের এই পোরসগুলোকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে মুলত কাজ করে থাকে টোনার। হাতের কাছে যদি টোনার না থাকে চিন্তার কোন কারণ নেই! বরফ দিয়েই আপনি টোনার এর কাজটি সেরে ফেলতে পারেন সহজেই। মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে, ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করার আগে, কিছুক্ষণ মুখে বরফ দিয়ে ম্যাসাজ করে নিন।

মুখে হাইড্রেটিং ক্রিম বা ময়েশ্চারাইজার ম্যাসাজ করে নিন

ফেইসওয়াশ বা এক্সফোলিয়েটর ব্যবহার করে মুখ পরিষ্কার করার পর আমাদের ত্বক অনেকটাই শুষ্ক হয়ে পরে। এই অবস্থায় সরাসরি কোন মেকআপ প্রোডাক্টস ব্যবহার করলে তা ঠিক মত বসবে না এবং উঠে উঠে আসবে। মেকআপের আগে অবশ্যই একটি ভালো ময়েশ্চারাইজার বা হাইড্রেটিং ক্রিম দিয়ে মুখে কিছুক্ষণ ভালোভাবে ম্যাসেজ করে নিতে হবে। এতে করে যেমন লোমকূপের ভিতরে মেকআপ জমতে পারবে না, তেমনি আপনার স্কিনও থাকবে মসৃণ। বিশেষ করে যে সকল ময়েশ্চারাইজারে ভিটামিন সি রয়েছে, চেষ্টা করুন এমন ক্রিম বা ময়েশ্চারাইজার ইউজ করতে। যারা অভিযোগ করে থাকেন, আমার মেকআপ কেন লং লাস্টিং হচ্ছে না, তারা অবশ্যই এই স্টেপটি ফলো করতে ভুলবেন না।

ত্বকের সাথে মানানসই মেকআপ প্রোডাক্টস সিলেক্ট করুন

মার্কেটে অনেক ব্র্যান্ডের অনেক ধরনের মেকআপ প্রোডাক্টস পাওয়া যায়। সব ধরণের প্রোডাক্টস যে সব ধরনের স্কিন টাইপের জন্যে মানানসই তা কিন্তু না! প্রোডাক্টস বাছাই করার সময় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে তা আপনার ত্বকের জন্য ভালো হবে কি না। আপনার ত্বকের ধরন এবং স্কিনটোন সম্পর্কে আগে থেকেই জেনে নিন। সেই অনুযায়ী প্রোডাক্ট নির্বাচন করার চেষ্টা করুন। অনেকদিন হয়ে গেছে এমন প্রোডাক্টস ব্যবহার না করাই স্কিনের জন্যে ভালো। ভালো ব্র্যান্ড খোঁজার চেষ্টা করুন এবং অল্প দামে মেকআপ পণ্য কিনুন। এটি যেমন ত্বককে বিভিন্ন ক্ষতি থেকে রক্ষা করবে, তেমনি আপনি সহজেই নিখুঁত মেকআপ লুক পাবেন।

নিখুঁত মেকআপের জন্য প্রাইমার মাস্ট

দীর্ঘ সময় ধরে মেকআপ ঠিক রাখতে কতটা প্রাইমার প্রয়োজন তা আমরা সবাই কমবেশি জানি। বিশেষ করে যাদের তৈলাক্ত ত্বক তাদের জন্য প্রাইমার ব্যবহারের কোনো বিকল্প নেই। সরাসরি মুখে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে কিছুক্ষণ পর সহজেই তৈলাক্ত বা অয়েলি হয়ে যেতে পারে। প্রাইমার আপনার মুখ থেকে অতিরিক্ত তেল শুষে নেয় এবং মেকআপকে দীর্ঘস্থায়ী করতে সাহায্য করে।

একটা কথা আছে “আগে দার্শনিক তারপর বিচারক”! আমরা সবাই আমাদের পছন্দ মতো সাজতে চাই। নিজেকে পরিপাটি রাখলে মনটাও বেশ ভালো থাকতে হবে। কিন্তু কষ্টের সাথে, ধৈর্য সহকারে সবকিছু মেনে চলার পরেও, যখন পোশাকটি আনন্দদায়ক হয় না, তখন বিপরীতটি ঘটে। মেকআপের আগে কীভাবে আপনার ত্বক তৈরি করবেন তা আপনি জানেন। তাই মেকআপ করার আগে আপনাকে অবশ্যই এই সতর্কতাগুলো মেনে চলতে হবে। এতে আপনি সহজেই যেমন নিখুঁত মেকআপ লুক পাবেন, তেমনি আপনার ত্বকও হবে সুন্দর।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Main Menu